1. babuibasa@gmail.com : editor :
  2. saskotha0@gmail.com : নিউজ ডেস্ক : এস এম সজল
বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ১১:০১ অপরাহ্ন

এটাই কি আমাদের একুশের চেতনা!

এস.এম. সজল
  • সর্বশেষ আপডেট : রবিবার, ২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ১৯২ জন সংবাদটি পড়েছেন

“আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারী আমি কি ভুলিতে পারি”এই স্লোগানে মুখরিত হয় রাত ১২ টা ১ মিনিট থেকে এবং ভোর সকাল থেকেই লক্ষ লক্ষ মানুষ এসে হাজির হয় শহীদ মিনারে। শ্রদ্ধা জানায় ভাষার জন্য জীবন দানকারী বীরদের। কিন্তু তা কি শুধু একুশে ফেব্রুয়ারি দুপুর পর্যন্তই?

ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁও থানার গর্ব ভাষা শহীদ আব্দুল জব্বার ‌। দেশের অন্যান্য প্রান্তের মতোই গফরগাঁওয়ে পালিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। যেহেতু ভাষার জন্য জীবন দানকারী পাঁচজন বীরের মধ্যে একজনের বাড়ি ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁও থানা বড়াইল গ্রামে সেহেতু এখানে জনগণের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রাজনৈতিক মহল সমাজের সর্বস্তরের মানুষ আসে এখানে শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে কিন্তু বেলা গড়ানোর সাথে সাথেই দেখা গেল এক ভিন্ন রূপ ৷ শহীদ বেদীতে যেখানে খালি পায়ে ওঠার কথানা, সেখানে দেখা গেল অগণিত মানুষ জুতা পায়ে হুড়োহুড়ি করে ফটোসেশনে ব্যস্ত। অনেকে নিজের কোলের কোমলমতি শিশু কে নিয়ে জুতা সহ শহীদ বেদিতে দাঁড়িয়ে ছবি তুলছে এতে করে প্রশ্ন জাগে আদৌ কি আমরা বাংলা ভাষাকে বুকে ধারণ করতে পেরেছি? সত্যিই কি আমরা ভাষাশহীদদের মর্যাদা দিতে পারছি ?নাকি কেবল একুশে ফেব্রুয়ারি আমাদের জন্য একটি উৎসবের নাম।

এ ব্যাপারে কথা হয় স্থানীয় একজন প্রতিনিধির সাথে ,তিনি ব্যতিক্রম নিউজকে বলেন আসলে এটি সম্পূর্ণ মূল্যবোধের ব্যাপার। তারপরও আমরা চেষ্টা করছি মানুষকে বোঝানোর।

আজ থেকে প্রতিটি দিনই যদি আমরা ভাষা শহীদদের অন্তরে ধারণ করতে পারি এবং তাদের যথাযত সম্মান প্রদর্শন করতে পারি তবেই তাদের আত্মদান সার্থক হবে। নতুবা কবির ভাষায় বলতে হবে,“ সাত কোটি বাঙালিরে হে মুগ্ধ জননী রেখেছ বাঙালি করে মানুষ করনি ”।একুশে ফেব্রুয়ারি শুধুমাত্র একটি উৎসব নয় হোক প্রতিটি বাঙালির প্রাণের স্পন্দন।

এস.এম. সজল/ব্যতিক্রম নিউজ

আপনি সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২১ ব্যতিক্রম নিউজ কর্তৃক সর্বসত্ব সংরক্ষিত।
Developer By Zorex Zira